মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

তামারহাজী জয়েনউদ্দীন মাধ্যমিক বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

তামারহাজী জয়েন উদ্দিন মিনা মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি ১৯৯৫ সালে এরাকার গন্য মান্য ব্যক্তি বগের আন্তরিক প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠিত হয় । অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়েপ্রথমে নিম্ন মাধ্যমিক ও পরে  মাধ্যমিক  হিসাবে  সীকৃতি ও এম,পি ও ভূক্ত করন করা হয় । বর্তমানে  স্রষ্ঠার অশেষ কৃপায় প্রতিষ্ঠান টি শিক্ষার্থী ফলাফল ও অবকাঠামো  সহ- সার্বিক অবস্থা অত্যন্ত সুন্দর ।

১৯৯৫ ইং

: ১৯৯৪ সালে অত্র  তামারহাজী জয়েন উদ্দিন মিনা মাধ্যমিক বিদ্যালয় এলাকার কয়েকজন গন্যমান্য ব্যক্তি বর্গ আলোচনা করেন যে, এলাকায় যদি একটি নিস্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় স্থাপন করা যায় তাহলে এলাকার ছেলে মেয়েরা লেখা পড়া অগ্রগতি লাভ করতে পারবে । তারই ধারা বাহিকতায় এরাকায় বর্ষিয়ান সমাজ সেবক আব্দুল মালেক মিনা  সাহেবের পিতা  ও তৎকালীন ইউপি চেয়ারম্যান জনাব মো: শাহাবুদ্দীন মিনা সাবু সহেবের দাদা জয়েনউদ্দীন মিনা সাহেবের নামে অত্র এলাকার পাঁচ টি গ্রাম, তামারহাজী আউটযুগ,বাউরকান্দি,বিলতামারহাজী ও মেঘাডাঙ্গা গ্রামবাসির প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষসহযোগীতায় তামারহাজী জয়েনউদ্দীন মিনা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় স্থাপিত হয় এবং কর্যক্রম আরম্ভ হয় ।

বিদ্যালটি প্রতিষ্ঠাতা মো: রোকন উদ্দীন মিনা ও তার পরিবার  সকল জমিদান করেন।

জনাব শাহাবুদ্দিন মিনা প্রতিষ্ঠানটির অনুমতি স্বীকৃতি এম,পি ও সহ সার্বিক অবস্থা তত্বাবধান করেন এবং  নাম করনের জন্য দশ লক্ষ টাকা প্রদান করেন । বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠায় আরো বেশ কয়েক জন ব্যাক্তির প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে  পরামর্শ ও তত্বাবধায়নে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম আরো  অগ্রগতি লাভ করে । অনেক প্রতিকুলতা থাকা সত্তেও ১৯৯৬ সাল হতে  নিম্ন মাধ্যমিক হিসাবে  প্রাথমিক  অনুমতি  ১৯৯৭ সাল হতে স্বীকৃতি  ও ১৯৯৯ সালে এম,পি ও  ভুক্তি  হয় । ২০০০ সাল হতে মাধ্যমিক বিদ্যালয়  হিসাবে পূর্বানুমতি  ২০০৩ সাল হতে মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসাবে স্বীকৃতি  ও ২০০৪ সালে মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসাবে এম,পি ও ভুক্ত হয়। প্রথম থেকে  অত্র বিদ্যালয়ে  রিজাল্ট খুবিই ভাল । বর্তমানে বোয়ালমারী  উপজেলার মধ্যে  একটি অন্য তম গুরুত্বপূর্ন  প্রতিষ্ঠান হিসাবে পরিচিত । প্রতিষ্ঠানে অব কাঠামো ঊন্নত ।আধুনিক প্রযুক্তির সহায়তায় পাঠদান করা হয়ে থাকে । বর্তমানে বিদ্যালয়টিতে অনেক ছাত্র / ছাত্রী লেখাপড়া করানো হয় ।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
বিকাশ চন্দ্র বালা ০১৭২৪৩৭০১০৮ tamarhazijmhs@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
গনেশ চন্দ্র রায় ০১৭৪০৮৯৪৩৪৩ ganeshroy1991@gmail.com

৬ষ্ঠ

৭ম

৮ম

৯ম

১০ ম

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

৪২

৪৩

৩৪

২৪

৩০

৩৬

২২

২৮

১৮

১৮

৯৪%

ক্রমিক

নং

নাম

কমিটির অবস্থান

শিক্ষাগত যোগ্যতা

পেশা

০১

MD. NURUL ALAM MINA

সভাপতি

এইচ.এস.সি/সমমান

ব্যবসায়ী

০২

MD.SHAHABUDDIN MINA

সহ-সভাপতি

এস.এস.সি/সমমান

সমাজকর্মী

০৩

BIKASHCH. BALA

সদস্য-সচিব

স্নাতকোত্তর/সমমান

শিক্ষকতা

০৪

MD. HABABUR RAHAMAN

শিক্ষানুরাগী

স্নাতক/সমমান

সমাজকর্মী

০৫

MD. OMER MIA

শিক্ষক প্রতিনিধি

স্নাতক/সমমান

শিক্ষকতা

০৬

A.H.M MAHAUR RAHAMAN

শিক্ষক প্রতিনিধি

স্নাতক/সমমান

শিক্ষকতা

০৭

MITARANI INDRA

শিক্ষক প্রতিনিধি

স্নাতক/সমমান

শিক্ষকতা

০৮

SACCHU MINA

দাতা সদস্য

এস.এস.সি/সমমান

ব্যবসায়ী

০৯

BISWAJIT ROY

অভিভাবক সদস্য

এইচ.এস.সি/সমমান

কৃষি

১০

AHANGIR SHAKH

অভিভাবক সদস্য

এস.এস.সি ’র নীচে

কৃষি

১১

KUDDUS MOLLAH

অভিভাবক সদস্য

এস.এস.সি ’র নীচে

কৃষি

১২

KOHINUR BEGUM

অভিভাবক সদস্য

এস.এস.সি ’র নীচে

অন্যান্য

১৩

AKHIL BISWAS

অভিভাবক সদস্য

এস.এস.সি ’র নীচে

অন্যান্য

সন

মোট

পাশ

উত্তীর্ন ছাত্র/ছাত্রী

পাশের হার

২০০৯

১৭

৪১.১৭

২০১০

১৯

১৩

৬৮.৪২

২০১১

২৯

১৬

৫৫.১৭

২০১২

৩২

৩০

১৬

১৪

৯৩.৭৫

২০১৩

১৬

১৫

৯৩.৭৫

 

 

 

 

 

 

অত্র বিদ্যালয় থেকে বেশ কয়েকজন ছাত্র ছাত্রী জুনিয়র বৃত্তি পেয়েছে ।

২০০২ সালে সা: জুনিয়র বৃত্তি       ১ জন

 

২০০৪ সালে মেধা:  জুনিয়র বৃত্তি    ১ জন

২০০৬ সালে সা: জুনিয়র বৃত্তি       ১ জন

২০১২ সালে সা: জুনিয়র বৃত্তি       ৩ জন

১৯৯৫ সালে স্থাপিত হয়ে অত্র বিদ্যালয়ে অর্জন অনেক। প্রতি বছর সমাপনী  ও মাধ্যমিক পরীক্ষায় খুব সুন্দর ফলাফল করেছে । +এ যদিও এখন ও পাইনি তবে +এ কাছাকাছি রিজাল্ট অনেক হলে । প্রতি বছরই প্রায় জুনিয়র বৃত্তি পাচ্ছে। বর্তমানে অত্র বিদ্যালয়ে কোন টিন সেড ঘর নেই । সবই বিল্ডিং এ দিক থেকে ও অত্র বিদ্যালয়টির অর্জন অনেক।

অত্র বিদ্যালয়টি ভবিষৎ তে কলেজে পরিনত করা পরিকল্পনা রয়েছে । এ ছাড়া প্রতিষ্ঠানটিকে একটি আধুনিক ও যুগোপযোগী উন্নত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসাবে গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে ।

উপজেলা থেকে ১৩ কি.মি দুরুত্ব